৩১ হাজার আবেদন ৪২তম বিসিএস

৪২তম বিসিএস

৪২তম বিসিএসে আবেদন জমা পড়ল ৩১ হাজারের বেশি। বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ৪২তম বিসিএসের আবেদন শুরু হয় ২০২০ সালের ৭ ডিসেম্বর এবং শেষ হয় ২০২০ সালের ২৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায়। সূত্রটি জানায় ৪২তম বিসিএসে সহকারী সার্জন হিসেবে ২ হাজার জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এবারের ৪২তম বিসিএসে ৩১ হাজার ৩০ জন চিকিৎসক আবেদন করেছেন। এখন পিএসসি আবেদন যাচাই করবে এবং প্রিলিমিনারি পরীক্ষার দিন ধার্য করবে। পিএসসির সুত্র মতে ৪২ তম বিসিএস এ আবেদন কম জমা পড়ায় খুব দ্রুততম সময়ে আবেদনপত্র যাচাই করে পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করা সম্ভব হবে। এ ছাড়া পিএসসির সুত্র মতে করোনার এই বিশেষ সময়ে চিকিৎসকদের জরুরি নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি গুরুত্ব পাবে। দ্রুত নিয়োগের পদক্ষেপও শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে ওই পিএসসির একটি সূত্র

৪২তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৪২তম বিশেষ বিসিএসের (বিশেষ) এমসিকিউ টাইপ লিখিত পরীক্ষা ২০২১ সালের  ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হতে পারে। সুনির্দিষ্ট তারিখ ও সময় যথাসময়ে কমিশনের ওয়েবসাইট ও সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করা হবে।

পরীক্ষার নম্বর বণ্টন প্রকাশ করেছে পিএসসি, বিজ্ঞপ্তিতে পিএসসি বলেছে, বিশেষ বিসিএসের জন্য পরীক্ষা হবে ৩০০ নম্বরের। এর মধ্যে ২০০ নম্বরের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা (এমসিকিউ টাইপ) হবে। আর ১০০ নম্বরের হবে মৌখিক পরীক্ষা।

২০০ নম্বরের পরীক্ষার জন্য প্রার্থীরা সময় পাবেন দুই ঘণ্টা। প্রিলিমিনারিতে মেডিকেল সায়েন্স (১০০), বাংলা (২০), ইংরেজি (২০), বাংলাদেশ বিষয়াবলি (২০), আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি (২০), মানসিক দক্ষতা (১০)গাণিতিক যুক্তির (১০) ওপর পরীক্ষা হবে। পরীক্ষায় প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য প্রার্থী ১ নম্বর পাবেন। তবে ভুল উত্তর দিলে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য প্রাপ্ত মোট নম্বর থেকে দশমিক ৫০ নম্বর কাটা যাবে।

৪২ তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার সুনির্দিষ্ট তারিখ ও সময় যথাসময়ে কমিশনের ওয়েবসাইট ও সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করা হবে।

Spread the Post with your Friends
  • 3
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *